রবিবার, ২৫ Jul ২০২১, ০৮:৫৪ অপরাহ্ন

বাউফলে নিমম্নমানের ইটে কোটি টাকার সড়ক

বাউফলে নিমম্নমানের ইটে কোটি টাকার সড়ক

এম.এ হান্নান, বাউফলঃ

বাউফলে ইটভাটায় পরিত্যক্ত নিম্নমানের ইট দিয়ে চলছে প্রায় দেড় কোটি টাকা ব্যয়ে সড়ক নির্মাণ কাজ। এতে এলাকাবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে নির্মাণ কাজে একাধিক বার বাধা দিলেও অদৃশ্য ক্ষমতাবলে নির্মাণ কাজ অব্যাহত রেখেছে ঠিকাদার। সংশ্লিষ্ট দপ্তর নিচ্ছেন না কোন পদক্ষেপ। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছেন। প্রশ্ন উঠেছে সড়কের স্থায়ীত্ব নিয়ে!
জানা যায়, গ্রামীন সড়ক উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ২০১৮-১৯ অর্থবছরে উপজেলার কচুয়া ব্রীজ থেকে বড়ডালিমা পর্যন্ত ২.১৩ কিলোমিটার কার্পেটিং সড়ক নির্মাণে ১কোটি ৩০লাখ টাকা বরাদ্ধ দেয় স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তর (এলজিইডি)। কার্যাদেশ পেয়ে নির্মাণ কাজ শুরু করে পল্লী স্টোর নামের এক ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। শর্তসাপেক্ষে ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের কাজ পরিচালনা করেন আজিজ মোল্লা নামের এক ঠিকাদার ও ইটভাটার মালিক।
মঙ্গলবার শেষ বিকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, নিম্নমানের মাটির মত নরম ইট দিয়ে চলছে নির্মাণ কাজ। সড়কের প্রস্থ ১০ফুটের জায়গায় কোথাও ৯ ফুট আবার কোথাও ৮ ফুট। সড়কের নিচু জায়গা উন্নয়নে দেওয়া হয়নি বালু। সড়ক রক্ষা পাকা ওয়ালা নির্মাণের কয়েকদিনেই ধসে পড়েছে। কচুয়া ব্রীজের সংযোগ সড়কের পাশে পাকা ওয়ালের বিপরীতে দেওয়া হয়েছে কলাগাছ আর বাশেঁর বেড়া। এযেনো সড়কের সারা শরিরে অনিয়ম আর দূর্নীতিতে ভরা।
অপরদিকে, সড়ক নির্মাণের শুরুতে অনিয়মের অভিযোগে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে দীর্ঘদিন নির্মাণ কাজ বন্ধ থাকে। সংশ্লিষ্ট দপ্তরকে ম্যানেজ করে সম্প্রীতি নির্মাণ কাজ শুরু করে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।

স্থানীয় শাহাবুদ্দিন মৃধা, জাফর সরদার ও মানিক হাওলাদার বলেন,‘ ঠিকাদার আজিজ মোল্লা তাঁর নিজস্ব ইটভাটার পরিত্যক্ত তিন নম্বর ইট সড়ক নির্মাণে ব্যবহার করছে। এর চেয়ে চুলার মাটিও শক্ত। আমরা (এলাকাবাসী) একাধিক বার বাধা দিয়েছি। ঠিকাদার প্রভাবশালী হওয়ায় কোন কিছুই আমলে নিচ্ছে না।
এবিষয়ে জানতে পল্লী স্টোর কর্তৃপক্ষ ও আজিজ মোল্লার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তা সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী মো. সুলতান আহম্মেদ বলেন,‘ নির্মাণ কাজ পরির্দশন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
সড়ক নির্মাণে অনিয়মের বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জাকির হোসেনের দৃষ্টি আর্কষণ করলে তিনি বলেন,‘ সড়ক নির্মাণে নিম্নমানের ইট ব্যবহারের কোন সুযোগ নেই। বিষয়টি তদন্ত করে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 aponnewsbd
error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!