গলাচিপায় মামলা করায় বাদীর স্বামীকে মারধর, ঘর ভাংচুর

জুন ০৮ ২০২১, ১৮:০৪

গলাচিপায় মামলা করায় বাদীর স্বামীকে মারধর, ঘর ভাংচুর

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ গলাচিপায় মামলা করায় বাদীর স্বামীকে মারধর করে ঘর ভাংচুরের খবর পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নে। সোমবার (৭ জুন) রাত অনুমান সাড়ে আটটার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে বলে মামলার বাদী তুলি বেগম জানান। তিনি বলেন, গত ৩১ মে ছেলেকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করায় সাতজনকে আসামী করে গলাচিপা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন তিনি। এর জেরে আসামীরা ক্ষিপ্ত হয়ে তার স্বামী মো. লুৎফর রহমানকে হরিদেবপুর একা পেয়ে মারধর করে। পরে আমার ঘর ভাংচুর করে। এলাকাবাসী আমার স্বামীকে উদ্ধার করে ওই রাতেই পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়। এ বিষয়ে আহত লুৎফর রহমান বলেন, আমার ছেলেকে মারার প্রতিবাদে থানায় মামলা করলে আমার ছেলের শ্বশুর বাড়ির লোকজন ক্ষিপ্ত ও উত্তেজিত হয়ে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হরিদেবপুর বটতলায় এলোপাথারীভাবে কিল, লাথি, ঘুষি ও লাঠি দিয়ে দিয়ে মারতে থাকে। আমি ডাক চিৎকার দিলে এলাকাবাসী এসে আমাকে উদ্ধার করে। তিনি আরও বলেন, পরে আমার বাড়িতে গিয়ে আসামীরা আমার ঘর ভাংচুর করে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করে।

এ বিষয়ে লুৎফর রহমান বাদী হয়ে গলাচিপা বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করবেন বলে জানান।

আমাদের ফেসবুক পেজ




Flag Counter


error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!