কলাপাড়ায় চিকিৎসকের গাফেলতিতে রোগীর মৃত্যু | আপন নিউজ

বুধবার, ২৯ মার্চ ২০২৩, ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন

প্রধান সংবাদ
গলাচিপা হাসপাতালে চলছে রমরমা কমিশন বাণিজ্য, রোগী এলেই পরীক্ষা তালতলীতে মুদি দোকানে টিসিবির পণ্য বিক্রি করায় দোকানিকে ১২ দিনের কারাদণ্ড গলাচিপা ইউএনওর স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ তালতলী পায়রা নদী সংলগ্ন বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ ভেঙ্গে নদী গর্ভে বিলিন ভোট না দেয়ায় জেলে চাল দেয়নি ইউপি সদস্য আমতলী গাজীপুর বন্দর বাজারের স্টলে গোয়ালঘর! কলাপাড়ায় বালতির পানিতে ডুবে দুই বছরের শিশুকন্যার মৃত্যু যশোরের শার্শায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন আমতলীতে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা কলাপাড়ায় পায়রা বন্দরে রামনাবাদ চ্যানেলের ক্যাপিটাল ড্রেসিং আনুষ্ঠানিক ভাবে হস্তান্তর
কলাপাড়ায় চিকিৎসকের গাফেলতিতে রোগীর মৃত্যু

কলাপাড়ায় চিকিৎসকের গাফেলতিতে রোগীর মৃত্যু

চঞ্চল সাহাঃ 
কলাপাড়ায় হাসপতালের  চিকিৎসক ডা: তনিমা পারভীন রুনার গাফেলতির কারনে এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার রাত পৌনে ৯ টার দিকে হাসপাতালের ইর্মাজেন্সী বিভাগে এমন ঘটনা ঘটলে রোগীর আত্মীয় স্বজনরা চিকিৎসক তন্নিমা পারভীনের উপর চড়াও হয় । এসময় সে নিজেকে রক্ষার জন্য ডাক্তার কোয়াটারে আশ্রয় নেয় বলে হাসপতালের চিকিৎসকরা দাবী করেছেন।
প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে জানা গেছে, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে নীলগঞ্জ ইউনিয়নের গামুরতলা এলাকার মো.আমিরুল ইসলাম’র স্ত্রী জবেদা বেগম (৭০) কে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসলে ইর্মাজেন্সী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা: তনিমা পারভীন রুনা তাকে চিকিৎসা দিয়ে বরিশাল রেফার করে। এ সময় রোগীর স্বজনরা এ্যাম্বুলেন্স নিয়ে আসতে আসতে রোগী গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। এসময় রোগীর স্বজনরা পুনরায় চিকিৎসক ডা: তনিমা পারভীন রুনাকে রোগীটি দেখার জন্য অনুনয়-বিনয় করলে ডাক্তার তনিমা এতে রাজী না হয়ে মোবাইলের বাটন টিপতে ব্যস্ত থাকেন । এক পর্যায়ে রেফার করা রোগী তিনি দেখবেন না বলে জানিয়ে দেন। এসময় রোগীর স্বজন সহ প্রতিবেশীরা ডা: তনিমা পারভীন রুনার উপর ক্ষিপ্ত হয় ।
এ ব্যাপারে ডা: তনিমা পারভীন রুনা কে তার মুঠোফোনে (০১৮২৮৪৫২২৩৭) কল করলে তার স্বামী মোবাইল ফোন রিসিফ করে তার স্ত্রীর সাথে কথা বলা যাবে না বলে তিনি জানান। এক প্রসঙ্গে তিনি বলেন আমার স্ত্রীর বক্তব্যে বিভাগীয় প্রধানকে লিখিত ভাবে দেয়া হয়েছে ।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা; চিন্ময় হাওলাদার জানান, রোগী হার্ড এ্যাটাক করেছে । ডাক্তার তনিমা পারভীনের উপর হামলার বিষয়টি তিনি স্বীকার করে  ঘটনাটি  থানায় জানিয়েছেন বলে উল্লেখ করেন তিনি ।
এদিকে, প্রত্যক্ষদর্শীদের বক্তব্যে চিকিৎসক তন্নিমা পারভীন তার স্বামীর সাথে ইর্মাজেন্সী বিভাগে গল্প করতে ছিলেন, এতে ডা: তনিমা পারভীন রুনা রোগীদের প্রতি গুরুত্ব দিচ্ছিল না ,তার এ অবহেলা একজন চিকিৎসক হিসেবে ঠিক নয় বলেও তারা উল্লেখ করেন।

আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved 2022 © aponnewsbd.com

Design By MrHostBD
error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!