কলাপাড়ায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে হয়রানি অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন | আপন নিউজ

সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৬:০৬ অপরাহ্ন

প্রধান সংবাদ
কলাপাড়ায় মসজিদের ইমামের দাড়ি ধরে টানাটানি ও মারধর আমতলীর প্রবাহমান কাউনিয়া খাল উন্মুক্ত রাখার দাবীতে কৃষকের বিক্ষোভ ও সমাবেশ আমতলীতে গলায় ফাঁস দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া ছাত্রের আত্মহত্যা গলাচিপায় শিকল দিয়ে গাছের সাথে বেঁধে কিশোর নির্যাতনের ঘটনায় আটক-৩ কলাপাড়ায় জমিজমা বিরোধ কে কেন্দ্র করে হামলা; আহত-৫ ভাতা নয়, মৃত্যুর আগে মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় নিজের নাম দেখে যেতে চান রাজ্জা কলাপাড়ায় মাদকাসক্ত যুবতীকে কারাদণ্ড গলাচিপায় আন্তর্জাতিক নার্স দিবস পালিত রাঙ্গাবালীতে নাবালিকা ধর্ষণ; অভিযুক্ত ছ্যানা বশার গ্রেপ্তার জামায়াত-শিবির ও শান্তি কমিটি মুক্ত আ.লীগ কমিটির দাবী আমতলী মুক্তিযোদ্ধাদের
কলাপাড়ায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে হয়রানি অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

কলাপাড়ায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে হয়রানি অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

আপন নিউজ রিপোর্টঃ

কলাপাড়ার চাকামইয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির কেরামত হাওলাদারের পক্ষে কাজ না করায় নির্দোষ ব্যক্তিকে হত্যা মামলার আসামী করে হয়রানী করার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন হয়েছে।
শুক্রবার (২৪জানুয়ারি) বেলা ১১টায় কলাপাড়া সাংবাদিক ফোরাম কার্যালয় এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন দারোগার তলব গ্রামের মোঃ নুরুল হক হাওলাদের ছেলে ও মোঃ বশার হাওলাদারের বড় ভাই মোঃ নেছার হাওলাদার।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, তালতলী উপজেলা কলারং গ্রামের চাঁন মিয়ার মেয়ে চম্পা বেগমকে তার স্বামী কলাপাড়া উপজেলার চাকামইয়া ইউনিয়নের গামুরবুনিয়া গ্রামের মৃতঃ কাদের হাওলাদারের ছেলে বাবুল হাওলাদার বন্ধুর বাড়ী বেড়াতে নেওয়ার কথা বলে তালতলী শ্বশুর বাড়ী থেকে নিয়া যায় এবং নিয়ে যাবার পর থেকেই নববধূ চম্পা নিখোঁজ আর স্বামী বাবুল হাওলাদার পলাতক থাকে।
খোজাখুজির পর কোনো সন্ধান না পেয়ে চম্পার বাবা চানমিয়া সিকদার জামাতা বাবুলের বিরুদ্ধে তালতলী থানায় একটি সাধারন ডায়েরি করে। এর ১২দিন পর কলাপাড়ার চাকামইয়া ইউনিয়নের গামুরবুনিয়া গ্রামের ধানক্ষেত থেকে বুধবার (২২জানুয়ারী) কলাপাড়া থানার পুলিশ চম্পার মৃত্যুদেহ উদ্ধার করে।
এই ঘটনায় ওই দিনই কলাপাড়া থানায় ১১জনকে আসামী করে একটি মামলা হয়। মামলা নং ২৩/২০২০। অহেতুক হয়রানী ও স্বার্থ হাসিলের জন্য চাকামইয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আমার ভাইকে উক্ত মামলায় ৫নং আসামী করে। চাকামইয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ঈশ্বান্বিত হইয়া প্রতি নিয়ত আমার ভাইকে সমাজে হেও প্রতিপন্ন ও ফায়দা লোটার জন্য মামলায় জড়াইয়াছে। চেয়ারম্যানের অসৎ কাজে বাঁধা দেওয়া যেমন গরীব লোকদের ঈদ কোরবানীর চাল লুটপাট করা। চাল লুটপাট করার কারনে কয়েকবার জেল কারাগারে যেতে হয়েছে তাকে। ভিজিডি, ভিজিএফ, নলকূপ, বিধবাভাতা, বয়স্কভাতা নাম দেয়ার কথা বলে টাকা হাতিয়ে নেওয়া এগুলোর প্রতিবাদ ও তার পক্ষে কাজ না করার কারনে বহু পূর্ব হতে তার হুকুমে ও নিয়োজিত লোকজন দ্বারা আমার পরিবার ও আমার ভাইকে শারীরিক, মানুসসিক, ও পাশবিক নির্যাতন করে আসছে।
৩ বছর পূর্বে আমার ভাইকে তারিকাটা বাজারে ফেলে তার হুকুমে তার গুন্ডা বাহিনী দ্বারা কুপিয়ে জখম করা হয়। এ ঘটনায় কলাপাড়া থানায় একটি মামলা হয়। মামলা নং জিআর ২৮২/২০১৬।
গত ১৫ দিন পূর্বে চাকামইয়া গামুরবুনিয়া ষ্ট্যান্ডে প্রকাশ্যে ও দিবালোকে চেয়ারম্যানের হুকুমে তাহার বাহিনী আমার ভাইকে হত্যার জন্য আক্রমন করিলে স্থানীয় লোকজন ও ইউপি সদস্য জাকির হোসেন অভি মৃধা তাহাকে রক্ষা করে। আমার ভাইকে হত্যা করতে না পারিয়া সুযোগ ও ক্ষমতার অপব্যবহার করে কলাপাড়া থানার ২২/১/২০২০ তারিখের ২৩ নং মামলায় ৫নং আসামীতে অর্ন্তভুক্ত করে। এই মামলার প্রকৃত আসামীদের সাথে আমার ভাই আবুল বশার হাওলাদারের সাথে কোনো আত্মীয়তার সম্পর্ক, বন্ধুত্ব সম্পর্ক নেই।

এমনকি এক সাথে কোন দিন চলাফেরাও করেনি। এছাড়াও বাদীপক্ষ আমার ভাইকে আদৌ চিনে না ও জানে না। ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হুমায়ূন কবির কেরামত হাওলাদার বাদী পক্ষের উপর অবৈধ প্রভাব খাটিয়ে অসৎ উদ্দেশ্যে আমার ভাইকে মামলায় জড়িয়েছে। এসময় কলাপাড়া সাংবাদিক ফোরামের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
এ ব্যাপারে চাকামইয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ হুমায়ূন কবির কেরামত হাওলাদারের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। তাই তার বক্তব্য দেয়া হয়নি।

আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 aponnewsbd
Design By MrHostBD
error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!