চাঁদা না দেয়ায় তালতলীতে ইউপি সদস্যকে মারধর! | আপন নিউজ

সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৫:০০ অপরাহ্ন

প্রধান সংবাদ
কলাপাড়ায় মসজিদের ইমামের দাড়ি ধরে টানাটানি ও মারধর আমতলীর প্রবাহমান কাউনিয়া খাল উন্মুক্ত রাখার দাবীতে কৃষকের বিক্ষোভ ও সমাবেশ আমতলীতে গলায় ফাঁস দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া ছাত্রের আত্মহত্যা গলাচিপায় শিকল দিয়ে গাছের সাথে বেঁধে কিশোর নির্যাতনের ঘটনায় আটক-৩ কলাপাড়ায় জমিজমা বিরোধ কে কেন্দ্র করে হামলা; আহত-৫ ভাতা নয়, মৃত্যুর আগে মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় নিজের নাম দেখে যেতে চান রাজ্জা কলাপাড়ায় মাদকাসক্ত যুবতীকে কারাদণ্ড গলাচিপায় আন্তর্জাতিক নার্স দিবস পালিত রাঙ্গাবালীতে নাবালিকা ধর্ষণ; অভিযুক্ত ছ্যানা বশার গ্রেপ্তার জামায়াত-শিবির ও শান্তি কমিটি মুক্ত আ.লীগ কমিটির দাবী আমতলী মুক্তিযোদ্ধাদের
চাঁদা না দেয়ায় তালতলীতে ইউপি সদস্যকে মারধর!

চাঁদা না দেয়ায় তালতলীতে ইউপি সদস্যকে মারধর!

আমতলী প্রতিনিধিঃ
চাঁদা না দেয়ায় ইউপি সদস্য মোঃ জাহাঙ্গির হাওলাদারকে মারধর করেছে স্থানীয় প্রভাবশালী বাশার জোমাদ্দার ও তার সহযোগীরা। ঘটনা ঘটেছে সোমবার রাতে বরগুনার তালতলী উপজেলার শারিকখালী ইউনিয়নের উত্তর নলবুনিয়া গ্রামে। আহত ইউপি সদস্যকে ওইদিন রাতেই স্বজনরা উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার আমতলী সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ইউপি সদস্যের স্ত্রী শিউলী আক্তার বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। আদালতের বিচারক মোঃ সাকিব হোসেন মামলাটি আমলে নিয়ে তালতলী থানার ওসিকে এজাহার হিসেবে গ্রহন করে তদন্তপুর্বক প্রতিবেদন দাখিলের নিদর্শে দিয়েছেন।
 জানাগেছে, উপজেলার শারিকখালী ইউনিয়নের উত্তর নলবুনিয়া গ্রামের খাস পুকুরের ৪২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে খননের কাজ পায় বরগুনার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কামাল নাইফ এন্টারপ্রাইজ। সাব ঠিকাদার হিসেবে ওই পুকুর খননের কাজ নেয় ইউপি সদস্য জাহাঙ্গির হাওলাদার। পুকুর খনন কাজ এ বছর ১৫ জানুয়ারী শুরু করে।  পুকুর খনন কাজের শুরুতে সাব-ঠিকাদার ইউপি সদস্য জাহাঙ্গিরের কাছে দুই লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে স্থানীয় প্রভাবশালী বাশার জোমাদ্দার, ছগীর ও সাগর। এ টাকা দিতে রাজি হয়নি ইউপি সদস্য। এ নিয়ে ইউপি সদস্য ও ছগির খন্দকারের মাঝে কয়েক দফায় কথা কাটাকাটি হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয় বাশার জোমাদ্দার, ছগির ও তার সহযোগীরা। পুকুর খনন কাজ প্রায় শেষ। সোমবার রাতে ইউপি সদস্য জাহাঙ্গির হাওলাদার দক্ষিণ কচুপাত্রা রশিদ মাষ্টারের মাহফিলে আসেন। মাহফিল থেকে রাত সাড়ে ৮ টায় দিকে বাড়ী ফেরার পথে ছগির জোমাদ্দার, বাশার জোমাদ্দার, সাগর, সৈকতসহ ৮-১০ জনের ইউপি সদস্য জাহাঙ্গির হওলাদারকে (৪০) আটকে লাঠি নিয়ে বেধরক মারধর করে এবং তাকে ছুরিকাঘাত করার চেষ্টা করে। তার ডাক চিৎকারে মাহফিলের লোকজন ছুটে এসে ইউপি সদস্যকে উদ্ধার এবং একটি ছুরি জব্দ করেছে। জব্দকৃত ছুরিটি পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা। অপরদিকে ইউপি সদস্যকে মারধরের খবর পেয়ে তার  লোকজন এসে বাশার জোমাদ্দার ও তার ভাইয়ের ছেলে সাগরকে মারধর করেছে বলে দাবী করেন ছগির জোমাদ্দার। আহত দু’জনকে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে তালতলী থানা পুলিশ ঘটনাস্থল এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। আহত ইউপি সদস্যকে স্বজনরা ওইদিন রাতেই উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার ইউপি সদস্য জাহাঙ্গিরের স্ত্রী শিউলি আক্তার বাদী হয়ে বাশার জোমাদ্দারকে প্রধান আসামী করে আমতলী সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করছে। আদালতের বিচারক মোঃ সাকিব হোসেন মামলাটি আমলে নিয়ে তালতলী থানার ওসিকে এজাহার হিসেবে গ্রহন করে তদন্তপুর্বক প্রতিবেদন দাখিলের নিদর্শে দিয়েছেন। এদিকে মারধরের ঘটনায় মাহফিলে বিগ্ন সৃষ্টি হয়। মাহফিলে আসা মুছুল্লিদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পরলেও আধা ঘন্টা পরে পুনরায় মাহফিল শুরু হয়।
আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার আলহাজ্ব হারুন অর রশিদ বলেন, আহত ইউপি সদস্যকে যথাযথ চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শী নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন বলেন, রাতে ইউপি সদস্যকে কয়েকজনে মারধর করেছে। মাহফিলের লোকজন গিয়ে তাকে উদ্ধার করে।
আহত ইউপি সদস্য জাহাঙ্গির হাওলাদার বলেন, খাস পুকুর খনন করতে গেলে ছগির জোমাদ্দার, বাশার জোমাদ্দার ও সাগর আমার কাছে দুই লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে। আমি এ টাকা দিতে অস্বীকার করলে আমাকে বিভিন্ন সময়ে জীবন নাশের হুমকি দিয়ে আসছেন তারা। সোমবার রাতে  মাহফিল থেকে বাড়ী ফেরার পথে আমাকে একা পেয়ে ছগির, বাশার ও সাগরসহ ৮-৯ জনের একটি সন্ত্রাসী বাহিনী লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারধর এবং আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ছুরিকাঘাত করতে চেষ্টা করে। স্থানীয় লোকজনের সহযোগীতায় আমি অল্পের জন্য রক্ষা পাই। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।
ছগির জোমাদ্দার চাঁদা দাবীর কথা অস্বীকার করে বলেন, আমার ভাই বাশার জোমাদ্দার ও ভাইয়ের ছেলে সাগরকে ইউপি সদস্যের লোকজন মারধর করেছে। আহত দুইজনকে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছি।
তালতলী থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ ফরিদুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এনেছি কিন্তু পুলিশ পৌছার পূর্বেই বাশার জোমাদ্দারের লোকজন পালিয়ে গেছে। তিনি আরো বলেন, ইউপি সদস্য জাহাঙ্গির হাওলাদার গত এক মাসে চারবার আমাকে ফোনে তাকে রক্ষার কথা জানিয়েছেন। এ ঘটনার কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে তিনি ছুরি জব্দের কথা অস্বীকার করেন।

আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 aponnewsbd
Design By MrHostBD
error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!