আমতলীতে অতি বর্ষণে জনজীবন বিপর্যস্ত; ভয়াবহ জলাবন্ধতা | আপন নিউজ

শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০৭:০৬ অপরাহ্ন

প্রধান সংবাদ
আমতলীতে তরমুজ আবাদে ব্যস্ত কৃষক নারী শ্রমিকরাও ঘরে বসে নেই একমাত্র শেখ হাসিনার সরকার দেশে উন্নয়নে সম অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন-এমপি মহিব কলাপাড়ায় শহীদ আলাউদ্দিন স্মরনে স্মরন সভা কলাপাড়া রিপোর্টার্স ক্লাব’র ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন গলাচিপায় পাতিহাঁস পাড়ল কালো ডিম কলাপাড়ায় পানি উন্নয়ন বোর্ড’র তরিকুল’র বিরুদ্ধে অবৈধ লেনদেনের অভিযোগ শিক্ষাক্রমে বিতর্কিত পাঠ্যক্রম বাতিলের দাবিতে কলাপাড়ায় মানববন্ধন আমতলী উপজেলা পরিষদ পুনঃনির্বাচনে প্রার্থী নিয়ে ধুম্রজাল মৃত্যুর তিন বছর চার মাসেও নির্বাচন হয়নি আমতলী পৌরসভার ২ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে কলাপাড়ায় সম্পত্তি জোরপূর্বক দখল করার পাঁয়তারা; থানায় অভিযোগ
আমতলীতে অতি বর্ষণে জনজীবন বিপর্যস্ত; ভয়াবহ জলাবন্ধতা

আমতলীতে অতি বর্ষণে জনজীবন বিপর্যস্ত; ভয়াবহ জলাবন্ধতা

আমতলী প্রতিনিধিঃ
গত চার দিনের অতি বর্ষণে আমতলীর জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পরেছে। পানি নিস্কাশন না হওয়ায় ভয়াবহ জলাদ্ধতা দেখা দিয়েছে। পানিতে  আমনের ক্ষেত থই থই করছে। তলিয়ে গেছে আউশের ধান ক্ষেত ও আমনের বীজতলা। চাষাবাদ প্রায় বন্ধ। ধান ক্ষেত তলিয়ে থাকায় কৃষকদের ধান কর্তনে সমস্যা হচ্ছে। দ্রæত পানি নিস্কাশন করা না হলে আইশ ধান ও আমনের বীজতলা পচে যাওয়ার আশংঙ্কা করছেন কৃষকরা।
জানাগেছে, গত শুক্রবার থেকে সোমবার পর্যন্ত চার দিন ধরে অতি বর্ষনে আমতলীর জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পরেছে। পানিতে মাঠ-ঘাট থই থই করছে। তলিয়ে গেছে আউশ ধানের ক্ষেত ও আমনের বীজতলা। জলকপাটগুলো দিয়ে পানি নিস্কাশন না হওয়ায় দেখা দিয়েছে উপজেলায় ভয়াবহ জলাবদ্ধতা। এতে আউশের ধান কর্তনে কৃষকদের সমস্যা হচ্ছে। দ্রুত পানি নিস্কাশন করা না হলে আইশ ধান ও আমনের বীজতলা পচে যাওয়ার আশংঙ্কা করছেন কৃষকরা। দ্রুত জলাবদ্ধতা নিরসনে দাবী জানিয়েছেন তারা। এছাড়া অতিবর্ষণে কষ্টে দিনাতিপাত করছে শ্রমিক, দিন মজুর ও হতদরিদ্র মানুষগুলো।
খোজ নিয়ে জানাগেছে, উপজেলার গুলিশাখালী, কুকুয়া, আঠারোগাচিয়া, হলদিয়া, চাওড়া, আমতলী সদর ও আড়পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের সকল আউশ ধানের ক্ষেত ও আমনের বীজতলা পানিতে তলিয়ে গেছে। জলকপাটগুলো দিয়ে পানি নিস্কাশন না হওয়ায় ভয়াবহ জলাবন্ধতা দেখা দিয়েছে। এতে আউশ ধান কর্তন ও  আমনের ক্ষেতে চাষাবাদ প্রায় বন্ধ রয়েছে।
আঠারোগাছিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম সোনাখালী গ্রামের কৃষক সোহেল রানা বলেন, অতি বর্ষণে  জলাবদ্ধতা দেয়া দেওয়ায় আউশের ধান কর্তণ ও  আমনের বীজতলা পানিতে তলিয়ে গেছে। তিনি আরো বলেন, জলাবদ্ধতার কারনে জমি চাষাবাদ করতে পারছি না।
আড়পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের ঘোপখালী গ্রামের কৃষক আফজাল শরীফ বলেন, পানিতে ক্ষেত তলিয়ে থাকায় আউশ ধান কাটতে এবং আমনের ক্ষেত বীজ বপন করতে পারছি না।
গুলিশাখালী ইউনিয়নের খেকুয়ানী গ্রামের জামাল সরদার বলেন, খেকুয়ানী জলকপাট দিয়ে পর্যাপ্ত পানি নিস্কাশন না হওয়ায় ভয়াবহ জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। দ্রুত পানি নিস্কাশন না হলে কৃষকের আমনের জমি চাষাবাদ এবং আউশের ধান কর্তনে সমস্যা হবে।
হলদিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ তক্তাবুনিয়া গ্রামের কৃষক শিবলী শরীফ বলেন, শুধু পানি আর পানি। চারিদিকে পানিতে থই থই করছে। বীজতলা পানির নিচে তলিয়ে রয়েছে।
আমতলী উপজেলা কৃষি অফিসার সিএম রেজাউল করিম বলেন, পানি নিস্কাশন না হওয়ায় জলাবন্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। এতে কৃষকের আউশ ধান কর্তণ ও আমনের বীজ বপনে সমস্যা হচ্ছে। দ্রুত জলাবন্ধতা নিরসনে উদ্যোগ নিতে হবে।

আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved 2022 © aponnewsbd.com

Design By MrHostBD
error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!