কলাপাড়ায় স্বামীর অধিকার পেতে শিক্ষার্থী সুমির সংবাদ সম্মেলন | আপন নিউজ

সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৬:২৬ অপরাহ্ন

প্রধান সংবাদ
কলাপাড়ায় মসজিদের ইমামের দাড়ি ধরে টানাটানি ও মারধর আমতলীর প্রবাহমান কাউনিয়া খাল উন্মুক্ত রাখার দাবীতে কৃষকের বিক্ষোভ ও সমাবেশ আমতলীতে গলায় ফাঁস দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া ছাত্রের আত্মহত্যা গলাচিপায় শিকল দিয়ে গাছের সাথে বেঁধে কিশোর নির্যাতনের ঘটনায় আটক-৩ কলাপাড়ায় জমিজমা বিরোধ কে কেন্দ্র করে হামলা; আহত-৫ ভাতা নয়, মৃত্যুর আগে মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় নিজের নাম দেখে যেতে চান রাজ্জা কলাপাড়ায় মাদকাসক্ত যুবতীকে কারাদণ্ড গলাচিপায় আন্তর্জাতিক নার্স দিবস পালিত রাঙ্গাবালীতে নাবালিকা ধর্ষণ; অভিযুক্ত ছ্যানা বশার গ্রেপ্তার জামায়াত-শিবির ও শান্তি কমিটি মুক্ত আ.লীগ কমিটির দাবী আমতলী মুক্তিযোদ্ধাদের
কলাপাড়ায় স্বামীর অধিকার পেতে শিক্ষার্থী সুমির সংবাদ সম্মেলন

কলাপাড়ায় স্বামীর অধিকার পেতে শিক্ষার্থী সুমির সংবাদ সম্মেলন

এস এম আলমগীর হোসেনঃ

কলাপাড়ায় মোসা.ফারজানা আক্তার সুমি নামে এক শিক্ষার্থী স্বামীর দাবীতে প্রেমিকের বাড়ীতে অবস্থান নেওয়ার পর কলাপাড়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছে।

গত শনিবার (১১ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার লালুয়া ইউনিয়নের চারিপাড়া গ্রামে প্রেমিকের বাড়ীতে অবস্থান নেওয়ার পর রোববার (১২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় এ সংবাদ সম্মেলন করে।

ফারজানা আক্তার সুমি বরিশাল সরকারী মহিলা কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী । সে কলাপাড়া উপজেলার চাকামইয়া ইউনিয়নের চুঙ্গাপাশা গ্রামের মৃত সিদ্দিকুর রহমানের মেয়ে। অপরদিকে, বায়েজিদ আহম্মেদ ঢাকার নর্দান ইউনিভার্সিটির ছাত্র। এর বাড়ী একই উপজেলার লালুয়া ইউনিয়নের চারিপাড়া গ্রামে। তার পিতার নাম মো.নাজির হাওলাদার। এদের দু’জনের পরিচয় সূত্রে গত দু’বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বায়েজিদ বিভিন্ন সময় বরিশাল’র বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে ফারজানা আক্তার সুমি কে নিয়ে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে রাত্রি যাপন করতেন। পরে বায়েজিদ আহম্মেদ তার সাথে প্রেমের সম্পর্ক অস্বীকার করায় শনিবার সকালে বায়েজীদ আহম্মেদের বাড়ীতে স্বামীর দাবী নিয়ে অবস্থান করে প্রেমিকা ফারজানা আক্তার সুমি।
এবং রোববার সন্ধ্যায় কলাপাড়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে ফারজানা আক্তার সুমি জানান, আমাদের প্রায় এক বছর সম্পর্কের পরে সে আমাকে নানাভাবে তার ভালোবাসার প্রমাণ দিতে বলে এবং শারীরিক সম্পার্কে জড়াতে চায়। এসবে আমি রাজি না হওয়াতে সে ২০১৯ সালের ১৫ জুানুয়ারি একজন হুজুর ডেকে কলোমা পড়ে বিয়ে করে এবং অর্থনৈতিক সমস্যার কথা বলে কাবিন করেনি সে। তারপর সে বলে আমি তো প্রমাণ করে দিলাম যে তুমি আমার বিয়ে করা বউ।

সেহেতু আমার সাথে শারীরিক কোন সম্পার্কে জড়াতে তোমার সমস্যা থাকার কথা না।
এভাবে সে আমাকে কথার জালে জড়িয়ে বিভিন্ন কৌশন অবলম্বন করে। ২০১৯ সালের ১৫ জুানুয়ারি হোটেল এ নিয়ে যায়। ঐ দিনের পর থেকেই সে আমাকে বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে নিয়ে যায়। রাত্রি যাপন করার জন্য এভাবে আমাদের স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কের ১ বছর পূর্ণ হয়ে যায়। বর্তমানে সে আমাকে তার স্ত্রী হিসেবে অস্বীকার করায় আমি তার বাড়ীতে স্বামীর দাবি নিয়ে ২০১৯ সালের ২৯ ডিসেম্বর যাই। স্থানীয় পর্যায় শালিস ডেকে কলাপাড়ায় আনেন মকবুল দফাদারের মাধ্যমে কাবিন করার কথা বলে। ছেলের মামা ফয়সাল আমাকে শালিসদের কাছে নিয়ে আসে ছেলের বাড়ি থেকে। এক পর্যায় ছেলে পক্ষ ওখান থেকে পালিয়ে যায়। পরে মকবুল দাফদারের কাছে দুই দিনের সময় চায়। পরে ২০২০ সালের ১ জুানুয়ারি ছেলেকে না আনিয়া শালিসি বসান।
তারপর তারা কাবিনের বিষয় ধামাচাপা দেবার জন্য বড় অংকের টাকার প্রস্তাব দেন যাহাতে আমি বায়জিদের স্ত্রী এ বিষয় পুরোপুরি ভুলে যাই।
কিন্তু আমি উনাদের প্রস্তাব মানতে পারিনি।
তাই ওই সালিশি থেকে আমি চলে আসি।
বর্তমানে আমার এলাকায় বিষয়টি সবাই জেনে গেছে। পরে আমি ২য় বারের মত আমার অধিকার আদায়ের জন্য বাইজিদের বাড়ি যাই ওই বাড়ি যাওয়ার পর আমার শ্বশুর মোঃ নাজির হাওলাদার অনেক খারাপ ব্যবহার করেন।

উনি আমাকে তার বাড়ি থেকে কলাপাড়ায় আনার চেষ্টা করেন। আমি রাজি না হওয়া তে সে কলাপাড়া থানার পুলিশ উপ-পরিদর্শক শওকত জাহান কে বাড়িতে পাঠিয়ে সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দিয়ে আমাকে থানায় নিয়ে আসা হয়।থানায় আনার পর ওনারা বলে তাদের কিছু করার নাই। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নলেজ রয়েছে। আমার পড়াশোনার খরচ আমার মা চালাতো, এই ঘটনা জানার পর আমার মা আমার পড়াশোনার খরচ দেওয়া বন্ধ করে দেয় এমনকি তারা আমার পাশে নেই বলেই চলে। কলেজের সবাই ঘটনাটি জেনে যায় যে কারণে আমি এখন কোথায় মুখ দেখাতে পারি না। তাই স্বামীর অধিকার আদায়ের জন্য আজ আমি আপনাদের কাছে আসি। আমি যে তার স্ত্রী সেই পরিচয়টুকু চাচ্ছি আর এই পরিচয় না পেলে আমার মৃত্যু ছাড়া আর কোনো পথ থাকবে না।বলে তিনি তার লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন।

আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 aponnewsbd
Design By MrHostBD
error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!