দিল্লিতে মুসলিমদের পাশে দাঁড়িয়েছেন হিন্দুরা; মুখ খুলেছেন মোদী | আপন নিউজ

শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০৮:১৬ অপরাহ্ন

প্রধান সংবাদ
আমতলীতে তরমুজ আবাদে ব্যস্ত কৃষক নারী শ্রমিকরাও ঘরে বসে নেই একমাত্র শেখ হাসিনার সরকার দেশে উন্নয়নে সম অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন-এমপি মহিব কলাপাড়ায় শহীদ আলাউদ্দিন স্মরনে স্মরন সভা কলাপাড়া রিপোর্টার্স ক্লাব’র ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন গলাচিপায় পাতিহাঁস পাড়ল কালো ডিম কলাপাড়ায় পানি উন্নয়ন বোর্ড’র তরিকুল’র বিরুদ্ধে অবৈধ লেনদেনের অভিযোগ শিক্ষাক্রমে বিতর্কিত পাঠ্যক্রম বাতিলের দাবিতে কলাপাড়ায় মানববন্ধন আমতলী উপজেলা পরিষদ পুনঃনির্বাচনে প্রার্থী নিয়ে ধুম্রজাল মৃত্যুর তিন বছর চার মাসেও নির্বাচন হয়নি আমতলী পৌরসভার ২ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে কলাপাড়ায় সম্পত্তি জোরপূর্বক দখল করার পাঁয়তারা; থানায় অভিযোগ
দিল্লিতে মুসলিমদের পাশে দাঁড়িয়েছেন হিন্দুরা; মুখ খুলেছেন মোদী

দিল্লিতে মুসলিমদের পাশে দাঁড়িয়েছেন হিন্দুরা; মুখ খুলেছেন মোদী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

দিল্লির আগুনের বিপরীতে প্রায় সত্তর ঘণ্টা পর মুখ খুলেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। বলেছেন শান্ত থাকতে। সমালোচনায় যে তার নাম সবার প্রথমে উঠবে না এমন কোনো কারণই নেই। এদিকে ভারতজুড়েই জনগণের আস্থা হারিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। বিজেপি কর্মীদের আগুন দেওয়ায় উৎসাহ দেওয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত দিল্লি পুলিশ।
থমথমে আতঙ্কের নগরে পরিণত হয়েছে উত্তর-পূর্ব দিল্লি। তবে এর ভেতরেও মানবিকতার ঢেউ উঠেছে। উত্তর-পূর্ব দিল্লির অশোক নগরে পুড়ে যাওয়া ঘরহীন মুসলিম পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন তাদেরই হিন্দু প্রতিবেশীরা। সেই ভ্রাতৃত্ববোধের মানবিক চিত্র তুলে ধরা হয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে।
অশোক নগরের ৪০ মুসলিম পরিবারের ঘর আর জীবনযাত্রা একপ্রকার ধ্বংসই হয়ে গেছে। ধ্বংসাবশেষের মধ্যেও ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে ঘরহীন মুসলিমদের কাছে টেনে নিয়েছেন হিন্দু বাসিন্দারা।
গত মঙ্গলবার এসব মুসলিমদের বাড়িঘর এবং দোকানপাট পুড়িয়ে দেওয়া হয়। তখন তাদের পাশে দাঁড়ান হিন্দু প্রতিবেশীরা। তারা ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য তাদের ঘরের দরজা খুলে দেন।
রশিদ নামের একজন মুসলিম অধিবাসী বলেন, আমরা এখানে ২৫ বছর একসঙ্গে বাস করছি। কখনো আমাদের হিন্দু প্রতিবেশীদের সঙ্গে একটুও মতবিরোধ হয়নি। আমরা সবাই একটি পরিবারের মতো বাস করি।
রশিদের হিন্দু প্রতিবেশী পিন্টু। তিনি বলেছেন, ‘পরিস্থিতি যেমনই হোক আমরা তাদের পাশে দাঁড়াবো। আমরা কখনও তাদের সম্পত্তির ক্ষতি করার কথা ভাবতেও পারি না। যেসব দোকানে আগুন লাগানো হয়েছে তা এসব মুসলিম পরিবারের মালিকানাধীন। ফলে, তাদের বাড়িঘর ও জীবিকা নির্বাহের রাস্তা উভয়ই ধ্বংস হয়ে গেছে।

আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved 2022 © aponnewsbd.com

Design By MrHostBD
error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!