মঙ্গলবার, ২৭ Jul ২০২১, ০৪:৪৯ পূর্বাহ্ন

প্রধান সংবাদ
কলাপাড়া সাংবাদিক ফোরামের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ গলাচিপায় এমপিকে ফুলেল শুভেচ্ছা গলাচিপায় ভরা মৌসুমেও ইলিশের অভাব, দুশ্চিন্তায় জেলেরা সরকারি খালে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষের আপন নিউজে খবরে কলাপাড়া ইউএনও’র অ্যাকশন কলাপাড়া সাংবাদিক ফোরামের সদস্য জুলহাস মােল্লাকে প্রাণনাশের হুমকি কলাপাড়ায় বাবার কাছে টাকা চেয়ে না পেয়ে ছেলের আত্মহত্যা পিয়ন থেকে কলেজের অধ্যক্ষ; সার্টিফিকেট জালিয়াতিসহ নানা অপকের্মর অভিযোগ আমতলী ও তালতলীতে পানির নীচে আমনের বীজতলা; ভয়াবহ জলাবদ্ধতা খাদ্য সহায়তার জন্য গলাচিপায় ৩০’টাকায় চাল ও ১৮’আটায় বিক্রি শুরু গলাচিপায় ঘরের অভাবে মানবেতর জীবন যাপন করছে পরিবারটি
তাপস হত্যা; বাউফলে পৌর আ’লীগের বিক্ষাভ

তাপস হত্যা; বাউফলে পৌর আ’লীগের বিক্ষাভ

বাউফল  প্রতিনিধিঃ
পটুয়াখালীর বাউফলে যুবলীগ নেতা তাপস দাস হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও ফাঁসির  দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে পৌর আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।
শুক্রবার (২৯মে)  বিকেল পাঁচটায় পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি ইব্রাহিম ফারুকের নেতৃত্ব মিছিলটি দলীয় কার্যালয় জনতা ভবন থেকে বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে ঘটনাস্থল  থানা সংলগ্ন ডাকবাংলোর সাসনে প্রতিবাদ সমাবেশে মিলিত হয়।
 এসময় নেতাকর্মীরা হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও ফাঁসির দাবি করে বিভিন্ন স্লোগান দেন।
প্রতিবাদ সভায়  উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল মোতালেব হাওলাদার বলেন, বাউফল পৌর মেয়র খুনি জুয়েলের উপস্থিত নির্দেশে যুবলীগ নেতা তাপস হত্যার গ্রেফতার না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।
বাউফল পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি ইব্রাহিম ফারুক বলেন, প্রকাশ্য পুলিশের সামনে যুবলীগ নেতা তাপস দাসকে হত্যা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত পুলিশ উল্লেখযোগ্য  কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। এটা প্রশাসনের চরম ব্যর্থতা।
তিনি বলেন, অনতিবিলম্বে খুনি মেয়রসহ সকল জড়িতদের গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনতে হবে। না হয় বাউফলের রাজপথে কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।
 সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন বাউফল পৌর আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক মো. এনায়েত খান ছানা, যুবলীগ সভাপতি মো. শাহজাহান সিরাজ।  এদিকে তাপস হত্যার পর থেকে প্রতিদিনই বাউফল  সদরসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন ও হাট বাজারে তাপস হত্যাকারিদের গ্রেপ্তার ও ফাঁসির দাবি করে চলছে  প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সভা সমাবেশ।
উল্লেখ্য, গত রবিবার (২৪মে) থানার সংলগ্ন ডাকবাংলোর সাসনে তোরণ নির্মাণকে কেন্দ্র করে মেয়র গ্রুপের হামলায় যুবলীগ নেতা তাপস দাস নিহত হয়। এঘটনায় নিহতের বড় ভাই পঙ্কজ দাস বাউফল থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলায় পৌর মেয়র জিয়াউল হক জুয়েলসহ ৩৫জনকে আসামী করা হয়।
বাউফল থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, আজ মনির হোসেন নামের এজাহারভুক্ত এক আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর আগে  ঘটনার পরের দিন সোমবার  সোহাগ হোসেন ও সুব্রত দাস কার্তিক নামের দুই যুবকে গ্রেফতার করা হয়। বাকী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 aponnewsbd
error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!