গলাচিপাবাসী আজও ভুলেনি মরহুম আ. খালেক মিয়াকে | আপন নিউজ

শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০৮:০৪ অপরাহ্ন

প্রধান সংবাদ
আমতলীতে তরমুজ আবাদে ব্যস্ত কৃষক নারী শ্রমিকরাও ঘরে বসে নেই একমাত্র শেখ হাসিনার সরকার দেশে উন্নয়নে সম অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন-এমপি মহিব কলাপাড়ায় শহীদ আলাউদ্দিন স্মরনে স্মরন সভা কলাপাড়া রিপোর্টার্স ক্লাব’র ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন গলাচিপায় পাতিহাঁস পাড়ল কালো ডিম কলাপাড়ায় পানি উন্নয়ন বোর্ড’র তরিকুল’র বিরুদ্ধে অবৈধ লেনদেনের অভিযোগ শিক্ষাক্রমে বিতর্কিত পাঠ্যক্রম বাতিলের দাবিতে কলাপাড়ায় মানববন্ধন আমতলী উপজেলা পরিষদ পুনঃনির্বাচনে প্রার্থী নিয়ে ধুম্রজাল মৃত্যুর তিন বছর চার মাসেও নির্বাচন হয়নি আমতলী পৌরসভার ২ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে কলাপাড়ায় সম্পত্তি জোরপূর্বক দখল করার পাঁয়তারা; থানায় অভিযোগ
গলাচিপাবাসী আজও ভুলেনি মরহুম আ. খালেক মিয়াকে

গলাচিপাবাসী আজও ভুলেনি মরহুম আ. খালেক মিয়াকে

সঞ্জিব দাস, গলাচিপাঃ

গলাচিপা উপজেলার পানপট্টি ইউনিয়নে জন্ম সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম আ. খালেক মিয়ার। আজও গলাচিপা উপজেলা থেকে শুরু করে ইউনিয়ন পর্যায় পর্যন্ত মানুষ তাকে ভুলতে পারেনি, আজও শ্রদ্ধাভরে স্মরন করে সর্বস্তরের মানুষ। এই সাদা মনের মানুষ টি তার জীবন যৌবন উৎসর্গ করে ছিলেন গলাচিপা উপজেলার গরীব দুঃখী কৃষক মেহনতী মানুষের জন্য। বার বার নির্বাচিত চেয়ারম্যান ছিলেন পানপট্টি ইউনিয়ন পরিষদের, ছিলেন গলাচিপা উপজেলায় পরিষদের চেয়ারম্যান, দ্বায়িত্ব পালন করেছিলেন তখনকার সময়ের ক্ষমতায় থাকা জাতীয় পার্টি উপজেলা সভাপতি হিসেবে। গলাচিপা উপজেলার যে কোন উন্নয়ন মূলক কাজ এর স্বপ্নদ্রষ্টা মরহুম আ. খালেক মিয়া। যার জীবন দশায় ঘুষ দূর্নীতি, টেন্ডারের মত অনিয়মের অভিযোগ কেউ তুলতে পারে নি মরহুম আ. খালেক মিয়ার বিরুদ্ধে। মৃত্যুর পর সন্তানদের জন্যে রেখে যেতে পারেন নি দুবেলা দুমুঠো খাবারের অর্থ মরহুম আ. খালেক মিয়া। মরহুম আ. খালেক মিয়া ছিলেন খেটে খাওয়া গরিব মেহনতী মানুষের নয়নের মনি। আজও পানপট্টি ইউনিয়নবাসী তার জন্য কাঁদে। এ বিষয় নিয়ে পানপট্টি ইউনিয়নের হত দরিদ্র রহিম হাওলাদার, কাদের মৃধা, ছোবাহান গাজী, মোশারেফ খা, মশিউর রহমান জানান, আমরা মরহুম আ. খালেক মিয়ার মতো আর মাটির মানুষ পাব না। এরকম জনদরদী মানুষ আমাদের মাঝে আর আসবে বলে মনে হচ্ছে না। তারা আরও বলেন, সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম আ. খালেক মিয়ার সুযোগ্য সন্তান মো. শামীম মিয়া বাবার ঐতিহ্য ধরে রাখার জন্য ইউনিয়ন পর্যায়ে কাজ কর্ম চালিয়ে যাচ্ছেন। মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রথম থেকে এ পর্যন্ত পানপট্টি ইউনিয়নে হত দরিদ্রদের বাড়িতে বাড়িতে ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দেন। এ বিষয়ে উপজেলা সাবেক ছাত্রলীগ নেতা, বর্তমান আওয়ামী যুবলীগ নেতা মো. শামীম মিয়া বলেন, আমার বাবা পানপট্টিসহ গলাচিপা উপজেলার মানুষের জন্য নিবেদিত প্রান ছিলেন। বাবার মৃত্যুর পর থেকে যতটুকু পারি মানুষের জন্য করে যাচ্ছি এবং মৃত্যু পর্যন্ত করে যাব। তিনি আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে জাতীয় সংসদ সদস্য এসএম শাহজাদা ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. শাহিন শাহ্ এর দিক নির্দেশনায় মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রথম থেকে এ পর্যন্ত পানপট্টি ইউনিয়নের খেটে খাওয়া অসহায় মানুষ, দিন মজুর, জেলে, কৃষকদের বাড়িতে ত্রাণ সামগ্রী পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। আমার এ ত্রাণ সামগ্রী অব্যহত থাকবে।

আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved 2022 © aponnewsbd.com

Design By MrHostBD
error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!