রবিবার, ২৫ Jul ২০২১, ১০:৩৬ অপরাহ্ন

কলাপাড়া হাসপাতালে দীর্ঘ ৫ বছর পর সিজারিয়ান অপারেশন শুরু; জনমনে নানা প্রশ্ন

কলাপাড়া হাসপাতালে দীর্ঘ ৫ বছর পর সিজারিয়ান অপারেশন শুরু; জনমনে নানা প্রশ্ন

এস এম আলমগীর হোসেনঃ
কলাপাড়া হাসপাতালে ডাক্তারদের অবহেলা ও ডাক্তারদের ক্লিলিক মুখির কারণে বন্ধ ছিল দীর্ঘ পাঁচ বছর সিজারিয়ান অপারেশন। র্দীঘ ৫ বছর  পর ফের অপারেশন থিয়েটার চালু হওয়ায় সন্তান সম্ভবা নারী ও তাদের পরিবার গুলোতে স্বস্তি ফিরে এসেছে। তবে কতদিন চলবে এ সিজারিয়ান অপারেশন কার্যক্রম? এই প্রশ্ন জনমনে।
কারণ কয়েকবার সিজার কার্যক্রম চালুর পর বন্ধ হয়ে যায়।
দীর্ঘ ৫ বছর পর বুধবার (২৬ ডিসেম্বর) রাত ১০ টায় খুকুমনি নামের একজন প্রসুতি নারীর সিজারের মাধ্যমে অপারেশন থিয়েটার শুরু করা হয়েছে। সফল ভাবে সিজার সম্পন্ন হওয়ায় নবজাতক শিশু ও মা দু’জনেই বর্তমানে সুস্থ রয়েছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সাল হতে হাসপাতালে সিজার করার সকল সরঞ্জামাদি থাকা স্বত্বেও গাইনী ও এ্যানেস্থেসিয়া চিকিৎসক সংকটের কারনে অপারেশন থিয়েটার বন্ধ ছিল। বর্তমান সরকারের উদ্যোগে প্রতি উপজেলায় পর্যাপ্ত ডাক্তার নিয়োগ দেয়ায় সে সংকট এখন অনেকটা লাঘব হয়েছে। এখন থেকে কলাপাড়া হাসপাতালে স্বল্প খরচে সিজারসহ যে কোন ধরনের অপারেশন করা হবে বলেও জানায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্র।
সিজার হওয়া প্রসুতি নারী খুকুমনি জানান, ’অল্প খরচের মধ্যে সরকারী হাসপাতালে সিজার করতে পেরে আমরা খুবই খুশি।’
কলাপাড়া হাসপতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা: জেএইচ খান লেলীন জানান, তার তত্ত্বাবধানে অপারেশনটি পরিচালিত হয়। এতে এ্যানেস্থসিয়া দিয়েছেন ডা: মো. শাহিন হাওলাদার (তাহসান) ও সহকারী হিসাবে ছিলেন ডা: মো. আশরাফুল ইসলাম।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. চিন্ময় হাওলাদার জানান, হাসপাতালের বন্ধ থাকা অপারেশন থিয়েটারটি চালু করতে পেরে আমাদের খুব ভালো লাগছে। এতে অনেক গরীব রোগী প্রসুতি সেবা পাবে। এতদিন হাসপাতালে পর্যাপ্ত সরঞ্জামাদি থাকা সত্ত্বেও চিকিৎসক সংকটের কারনে আমরা সিজারিয়ান সেবা দিতে পারিনি। এখন থেকে কলাপাড়া হাসপাতালে সিজার সহ যে কোন ধরনে অপারেশন নিয়মিত হবে বলেও তিনি আশা ব্যক্ত করেন।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. চিন্ময় হাওলাদার জানান, হাসপাতালের বন্ধ থাকা অপারেশন থিয়েটারটি চালু করতে পেরে আমাদের খুব ভালো লাগছে। এতে অনেক গরীব রোগী প্রসুতি সেবা পাবে। এতদিন হাসপাতালে পর্যাপ্ত সরঞ্জামাদি থাকা সত্ত্বেও চিকিৎসক সংকটের কারনে আমরা সিজারিয়ান সেবা দিতে পারিনি। এখন থেকে কলাপাড়া হাসপাতালে সিজার সহ যে কোন ধরনে অপারেশন নিয়মিত হবে বলেও তিনি আশা ব্যক্ত করেন।

আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 aponnewsbd
error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!