শুক্রবার, ৩০ Jul ২০২১, ০৬:১১ পূর্বাহ্ন

প্রধান সংবাদ
বঙ্গোপসাগরে ট্রলার ডুবি; ১১ জেলে উদ্ধার গলাচিপায় হত্যা মামলার প্রধান দুই আসামী গ্রেফতার গলাচিপায় লকডাউনের ৭ম দিনে ব্যাপক তৎপর উপজেলা প্রশাসন তিন ঘন্টার ব্যবধানে আমতলী হাসপাতালে করোনা ইউনিটে দুইজনের মৃত্যু অভ্যন্তরীন কোন্দলের জের ধরে কলাপাড়ায় ছাত্রলীগ নেতার হাতের কব্জি কর্তন গলাচিপায় কঠোর লকডাউনে তৎপর প্রশাসন ও সেনাবাহিনী গলাচিপায় টানা বর্ষণে তলিয়ে গেছে নিম্নাঞ্চল নলছিটিতে সাংবাদিকের ওপর হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কলাপাড়ায় মিলাদ ও দোয়া করোনায় সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা ঝালকাঠী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের মৃত্যু
কলাপাড়ায় পুলিশ ও সংবাদকর্মীদের হস্তক্ষেপে সম্পত্তি বুঝে পেলো সেই হোসনেয়ারা

কলাপাড়ায় পুলিশ ও সংবাদকর্মীদের হস্তক্ষেপে সম্পত্তি বুঝে পেলো সেই হোসনেয়ারা

আপন নিউজ রিপোর্টঃ

কলাপাড়া থানার পুলিশ ও স্থানীয় সংবাদকর্মীদের সহায়তা ও হস্তক্ষেপে সন্তানের নামে ক্রয়কৃত সম্পত্তির ভোগদখল বুঝে পেলো অসহায় সেই হোসনেয়ারা বেগম। কলাপাড়া থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমানের নির্দেশে শুক্রবার তার জমি বুঝিয়ে দেয়া হয়। এসময় এ.এস.আই মো. আনোয়ার হোসেন, আইনজীবী এ্যাডভোকেট মো. মোস্তফা সরোয়ার, কলাপাড়া প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি বিশ্বাস শিহাব পারভেজ মিঠু, কলাপাড়া রিপোর্টার্স ক্লাবের অর্থ সম্পাদক মো. ওমর ফারুক ও স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. নিজামসহ গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, উপজেলার বালিয়াতলী ইউনিয়নের চড় বালিয়াতলী গ্রামের মোস্তফা খন্দকারের স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগম দীর্ঘদিন ধরে সন্তানের নামে ক্রয়কৃত সম্পত্তির ভোগদখল বুঝে পায়নি। তার শশুড় স্থানীয় গ্রামের বাসিন্দা ফজলে খন্দকার ও দেবরদের সাথে পারিবারিক ঝামেলা থাকায় এ সমস্যার সৃষ্টি হয়। বিভিন্ন জায়গায় ছুটোছুটি করেও কোন সুরাহা পায়নি হোসনেয়ারা বেগম। পরে কলাপাড়া থানার পুলিশ ও সংবাদকর্মীদের সহায়তায় জমি ফিরে পান তিনি। শুক্রবার বিরোধীয় জমি মাপ-ঝোঁপ করে তার অংশ তাকে বুঝিয়ে দেয়া হয়। দীর্ঘদিন পরে জমি বুঝে পেয়ে হোসনেয়ারা বেগমের মুখে হাসি ফিরে আসে। এতে হোসনেয়ারা বেগম ও গ্রামের লোকজন স্থানীয় প্রশাসন ও সংবাদকর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।
এবিষয়ে কলাপাড়া থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, একখন্ড জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে পুত্রবধূ ও শশুড়ের সাথে বিরোধ চলছিল। বিষয়টি আমরা ফয়সালা দেয়ার জন্য চেষ্টা করেছি। ফয়সালা দিতে পেরে আমরাও খুশি।

আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 aponnewsbd
error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!