আমতলীতে একটি মুল্যবান রেইন্টি গাছ নিয়ে ধ্রমজাল সৃষ্টি | আপন নিউজ

সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৫:৩১ অপরাহ্ন

প্রধান সংবাদ
কলাপাড়ায় মসজিদের ইমামের দাড়ি ধরে টানাটানি ও মারধর আমতলীর প্রবাহমান কাউনিয়া খাল উন্মুক্ত রাখার দাবীতে কৃষকের বিক্ষোভ ও সমাবেশ আমতলীতে গলায় ফাঁস দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া ছাত্রের আত্মহত্যা গলাচিপায় শিকল দিয়ে গাছের সাথে বেঁধে কিশোর নির্যাতনের ঘটনায় আটক-৩ কলাপাড়ায় জমিজমা বিরোধ কে কেন্দ্র করে হামলা; আহত-৫ ভাতা নয়, মৃত্যুর আগে মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় নিজের নাম দেখে যেতে চান রাজ্জা কলাপাড়ায় মাদকাসক্ত যুবতীকে কারাদণ্ড গলাচিপায় আন্তর্জাতিক নার্স দিবস পালিত রাঙ্গাবালীতে নাবালিকা ধর্ষণ; অভিযুক্ত ছ্যানা বশার গ্রেপ্তার জামায়াত-শিবির ও শান্তি কমিটি মুক্ত আ.লীগ কমিটির দাবী আমতলী মুক্তিযোদ্ধাদের
আমতলীতে একটি মুল্যবান রেইন্টি গাছ নিয়ে ধ্রমজাল সৃষ্টি

আমতলীতে একটি মুল্যবান রেইন্টি গাছ নিয়ে ধ্রমজাল সৃষ্টি

আমতলী প্রতিনিধিঃ আমতলী উপজেলা ভুমি অফিস এবং এমইউ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় সীমানা সংলগ্ন একটি মুল্যবান রেইন্টি গাছ নিয়ে ধ্রমজালের সৃষ্টি হচ্ছে। গাছটি উপজেলা ভুমি অফিস কর্তৃপক্ষ এবং সীমানা সংলগ্ন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাদের নয় বলে দাবী করছেন। দু’পক্ষই দাবী না করায় গাছটি নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়ে তাহলে গাছটি কার? স্থানীয়রা অভিযোগ করেন ভুমি অফিসের পিয়ন মোঃ শানু মিয়া গাছটি কেটে নিয়ে গেছে।




জানাগেছে, উপজেলা ভুমি অফিস এবং এমইউ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় সীমানা সংলগ্ন একটি বৃহৎ রেইন্টি গাছ গত ২৭ জুলাই বিরামহীন বর্ষণে হেলে পড়ে। ওই গাছটি ভুমি অফিসের পিয়ন মোঃ শানু মিয়া কেটে গোপনে পৌর শহরের মোঃ খলিলুর রহমান চুন্নু তালুকদারের স্ব-মিলে নিয়ে গেছে এমন অভিযোগ স্থানীয়দের। গাছটি স্ব-মিলে নেয়ার খবর জানাজানি হয়ে গেলে উপজেলা ভুমি অফিস কর্তৃপক্ষ এবং এমইউ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাদের নয় বলে দাবী করেন। দুই পক্ষই গাছটি তাদের দাবী না করায় এলাকাবাসীর মধ্যে ধ্রমজালের সৃষ্টি হয়েছে। প্রশ্ন দেখা দিয়েছে তাহলে গাছটি কার? ওই গাছটি মুল্য অন্তত ৩০ হাজার টাকা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন বলেন, প্রকাশ্যে দিবালোকে ভুমি অফিসের পিয়ন শানু মিয়া শ্রমিক দিয়ে গাছটি কেটে নিয়ে গেছেন।

সোমবার চুন্নু মিয়ার স্ব-মিলে গিয়ে দেখাগেছে, ৮টি টুকরো করে গাছটি স্ব-মিলে ফেলে রাখা হয়েছে।
স্ব-মিল শ্রমিক মোঃ ইব্রাহিম মিয়া বলেন, ভুমি অফিসের পিয়ন মোঃ শানু মিয়া গাছটি কেটে স্ব-মিলে পাঠিয়ে দিয়েছে। ওই মুল্যবান গাছটিতে অন্তত ৩০ সিএফটি চেরাই কাঠ হবে।

স্ব-মিল মালিক মোঃ খলিলুর রহমান চুন্নু তালুকদার বলেন, কাঠের গুড়ি ব্যবসায়ী মোঃ জামাল গাছটি সম্পর্কে জানেন। প্রকৃত গাছের মালিক কে আমার জানা নেই।

কাঠের গুড়ি ব্যবসায়ী জামাল বলেন, ওই গাছটি সম্পর্কে আমি কিছুই জানিনা।

উপজেলা ভুমি অফিসের পিয়ন মোঃ শানু মিয়ার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

আমতলী এমইউ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক মোঃ শাহ আলম কবির বলেন, বিদ্যালয় সীমানা সংলগ্ন কেটে নেয়া গাছটি বিদ্যালয়ের জমিতে নয়। ওটি ভুমি অফিস কর্তৃপক্ষের। গাছটি কে কেটে নিয়ে গেছে তারাই জানেন? তিনি আরো বলেন, ওই গাছের পাশ দিয়ে বিদ্যালয়ের জমিতে বাউন্ডারী ওয়াল নির্মাণ কাজ করা হচ্ছে।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) মোঃ নাজমুল ইসলাম বলেন, ওই গাছটি ভুমি অফিসের জমিতে নয়। কে বা কাহারা গাছটি কেটে নিয়েছে আমার জানা নেই। তিনি আরো বলেন. গাছটি এমইউ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের জমিতে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মোঃ কায়সার হোসেন বলেন, খোঁজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 aponnewsbd
Design By MrHostBD
error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!