কলাপাড়ায় গত ছয় মাসে ২ কোটি টাকা মূল্যের মাদক উদ্ধার; আটক-৫৫ | আপন নিউজ

বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:৫২ অপরাহ্ন

প্রধান সংবাদ
গলাচিপায় ক্যাডেট জুবায়েরের দাফন সম্পন্ন কলাপাড়ায় কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিষ্ট সমিতি’র নির্বাচন সম্পন্ন আমতলীতে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৬৫ জন পরীক্ষার্থী আমতলীতে ভুল আল্ট্রাসাউন্ড প্রতিবেদনে চিকিৎসা; রোগীদের অবস্থা সংঙ্কটজনক ৭১ বছরেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নির্মাণ হয়নি গলাচিপায় গৃহবধূর লাশ উদ্ধার আমতলীতে মুদি ও মনোহরি ব্যবসায়ী সমিতির পরিচিতি সভা ও শীতবস্ত্র বিতরন ১/১১’র সময় সেনাবাহিনীর নির্মম নির্যাতনের শিকার সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মিজান তালতলীতে গাছ থেকে পড়ে শিশুর মৃত্যু; দাদীর অভিযোগ পিটিয়ে হত্যা তালতলীতে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি জাহাজ নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নের দাবিতে মানববন্ধন
কলাপাড়ায় গত ছয় মাসে ২ কোটি টাকা মূল্যের মাদক উদ্ধার; আটক-৫৫

কলাপাড়ায় গত ছয় মাসে ২ কোটি টাকা মূল্যের মাদক উদ্ধার; আটক-৫৫

এস এম আলমগীর হোসেনঃ

কলাপাড়ায় পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযানে গত ছয় মাসে ৫৫ জন মাদক বিক্রেতাকে আটক করেছে কলাপাড়া থানা পুলিশ।
গ্রেফতারকৃতদের দখল থেকে ৬৪ হাজার ৯শত ২৯ পিস ইয়াবা, ১৭ লিটার চোলাই মদ এবং ২ কেজি ৭৫ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করেছে পুলিশ। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ২ কোটি টাকা। এসময় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে থানায় মোট ৪৪টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, মাদকের বিরুদ্ধে বর্তমান সরকারের জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরন করে কলাপাড়া থানার অন্তর্গত এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান জোরদার করেছে পুলিশ। অভিযান সফল করতে সোর্সের সংখ্যা বৃদ্ধি করা হয়েছে। যেখানেই মাদক সেখানেই পুলিশী এ্যাকশন। মাদক বিরোধী অভিযান, গ্রেফতার ও মাদক উদ্ধার এখন কলাপাড়া থানা পুলিশের প্রতিদিনের রুটিন ওয়ার্ক। এজন্য পুলিশ কর্মকর্তাদের উৎসাহিত করতে জেলা পুলিশ ও রেঞ্জ পুলিশের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ গ্রেফতার ও মাদক উদ্ধারকারী পুলিশ কর্মকর্তাকে মাস ভিত্তিক ক্যাটাগরিতে সেরা মাদক উদ্ধারকারী কর্মকর্তা হিসেবে পুরস্কৃত করা হচ্ছে। যাতে মাদক বিরোধী অভিযানে পুলিশ কর্মকর্তাদের আগ্রহ ও মনোবল আরও বৃদ্ধি পায়।

কলাপাড়া থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান আপন নিউজকে বলেন, ’প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরন করে মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। মাদকের সাথে কোন আপোষ নেই। সে যেই হোক, সমাজের যেকোন ক্ষমতাধর মানুষ। কাউকে ছাড় দেয়ার কোন সুযোগ নাই। মাদক বিরোধী অভিযান আরও জোরদার করা হচ্ছে।’

ওসি আরও বলেন, ’গত ১জানুয়ারী ২০২০ থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত ১কোটি ৯৮ লক্ষ ৯১ হাজার ৩০০ টাকা মূল্যের ইয়াবা, গাঁজা ও চোলাই মদ জাতীয় মাদক দ্রব্য উদ্ধার করা হয়েছে। এসময় ৫৫জনের নামে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে ৪৪টি মামলা করা হয়েছে। এসকল মামলার অধিকাংশ তদন্ত প্রতিবেদন বিচারের জন্য আদালতে দাখিল করা হয়েছে।’

উল্লেখ্য, দেশের সীমান্তবর্তী এলাকা সহ কক্সবাজার ও টেকনাফ উপকূলে আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর নজরদারি বৃদ্ধির ফলে কুয়াকাটার সমুদ্র উপকূল এখন মাদক পাচারের অন্যতম জোন হয়ে উঠছে। গত ক’বছরে মহিপুর থানার অন্তর্গত সমুদ্র উপকূল থেকে র‌্যাব ও কোষ্টগার্ডের হাতে ১০/১২ লাখ পিচ ইয়াবা উদ্ধার হলেও এক্ষেত্রে মহিপুর থানা পুলিশের উল্লেখযোগ্য কোন অর্জন নেই।
এমনকি মহিপুর থানার অন্তর্গত সমুদ্র পথে এসব মাদকের চালান এসে মৎস্যবন্দর ও কুয়াকাটা উপকূল থেকে খালাস হয়ে সড়ক পথে র‌্যাবের হাতে আটক হলেও মহিপুর থানা পুলিশ রহস্যজনক কারনে এর কোন হদিস পাচ্ছেনা।

আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved 2022 © aponnewsbd.com

Design By MrHostBD
error: সাইটের কোন তথ্য কপি করা নিষেধ!!